মেনু নির্বাচন করুন

বিরল প্রজাতির চন্দনা টিয়ার অভয়াশ্রম তৈরী

বিরল প্রজাতির চন্দনা টিয়ার অভয়াশ্রম তৈরী

 

বগুড়া জেলার দক্ষিণে অবস্থিত শাহাজানপুর উপজেলা। ঘন ঝোপ ঝার এবং প্রাচীর বৃক্ষের সমাহার এই উপজেলা। Wildlife and Environment Save Team (WEST) Bangladeshবগুড়া জেলার পাখিদের উপর চেকলিস্ট তৈরী করার সময় ২০০৮ সাল থেকে এ পর্যমত্ম শুধু শাজাহানপুর উপজেলাতেই ৯৩ প্রজাতির পাখি পেয়েছে। যা অন্য কোন উপজেলা এমন কি উত্তরবঙ্গের কোন উপজেলাতে এত পাখির সমাহার নেই। দূর্লভ প্রজাতির পাখির এক বিশাল ভান্ডারে সমৃদ্ধ এ উপজেলা। শাজাহানপুর উপজেলায় যেমন রয়েছে বিভিন্ন জাতের প্রাচীন বৃক্ষ সমৃদ্ধ বগুড়া ও জাহাঙ্গীরাবাদ ক্যান্টনমেন্ট, তেমনি রয়েছে বিভিন্ন জাতের শাক-সবজির আবাদ। এছাড়া বাঁশের জন্য বিখ্যাত হওয়ায় পাখিদের জন্য নিরাপদ অভয়াশ্রম হিসেবে গড়ে উঠেছে। ২০১২ সালে মে মাসে উপজেলার ডেমাজানী বাজারে অবস্থিত শতবর্ষী মেহগনী গাছে বাংলাদেশের মহা সংঙ্কটাপন্ন চন্দনা টিয়ার সন্ধান পাওয়া যায়। চন্দনা টিয়াদের প্রজনন বৃদ্ধির জন্য মেহগনী গাছে এবং এর আশে পাশে বৃক্ষ কাঠের বাক্স, পস্নাস্টিকের পাই এবং বিশেষভাবে নির্মিত মাটির তৈরী কলস বেধে দেয়া হয়। চন্দনা টিয়া শাজাহানপুর উপজেলার জীব বৈচিত্র্যের এক বিশাল সম্পদ। চন্দনা টিয়ার সংখ্যা বৃদ্ধি করা গেলে এ উপজেলার ডেমাজানী বাজার হবে অন্যতম একটি পাখি পর্যটন কেন্দ্র।